রাজনৈতিক অফিসে বসে ফেনসিডিল বিক্রি করেন যুবলীগ নেতা! - দৈনিক আমার দেশ  
  1. [email protected] : স্পেশালিষ্ট : স্পেশালিষ্ট
  2. [email protected] : Oli Amammed : Oli Amammed
  3. [email protected] : admin21 :
  4. [email protected] : claimtrainnn :
  5. [email protected] : Emran hossain : Emran hossain
  6. [email protected] : maybelledore99 :
  7. [email protected] : oliadmin :
  8. [email protected] : shorif haider : shorif haider
  9. [email protected] : Yousuf H. Babu : Yousuf Hossain
রাজনৈতিক অফিসে বসে ফেনসিডিল বিক্রি করেন যুবলীগ নেতা! - দৈনিক আমার দেশ
বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ১০:০৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
ফারুক হত্যা মামলায় টাঙ্গাইলের সাবেক পৌর মেয়র কারাগারে   ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ গেলো আরও ৩৮ জনের, শনাক্ত ২১৯৮ সৌদিদের সর্বনিম্ন মজুরি ৩ হাজার রিয়াল নির্ধারণ। করোনা ভ্যাকসিন সরাসরি ক্রয়ের নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে সরকার পবিত্র কাবা শরীফ কে স্ট্যাচু, জিয়াউলের বিরুদ্ধে অবশেষ মামলা। ভাস্কর্য ইস্যুতে সরকার ও ইসলামি দল গুলো মুখোমুখি অবস্থানে সাংসদ নিক্সনের স্ত্রীর ‘রহস্যজনক’ মৃত্যুতে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য পাওয়া গেছে সরকারের বিরুদ্ধে বৃহত্তর গণ আন্দোলন গড়ে তুলতে সাকি – নুরের নেতৃত্বে নতুন জোট কুষ্টিয়ায় বাংলাদেশ দরিদ্র উন্নয়ন সংস্থার করোনা সচেতনতা কর্মসূচি পালন যখন আমরা ধরবো, ফাইনাল হয়ে যাবে: যুবলীগ চেয়ারম্যান

রাজনৈতিক অফিসে বসে ফেনসিডিল বিক্রি করেন যুবলীগ নেতা!

  • হালনাগাদ সময়ঃ বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ১০০৪ পাঠক সংখ্যাঃ

গাজীপুরের টঙ্গীতে ফেনসিডিলসহ আটক হয়েছেন যুবলীগ নেতা নাজমুলহক (৩৪)। বুধবার দুপুরে টঙ্গীর মরকুন টিএন্ডটি এলাকার নিজ অফিসে ফেনসিডিল বিক্রির সময় টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

নাজমুল গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গীর ৪৪ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী। তিনি নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার বিষ্ণুপুর এলাকার সাইদুল হকের ছেলে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি টঙ্গীর গোপালপুর এলাকায় বাস করেন।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম জানান, নাজমুল দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় মাদক ব্যাবসা করে আসছিলেন। নিজ রাজনৈতিক অফিসে বসে ফেনসিডিল বিক্রির সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই শাহ ফরিদ ও এএসআই ওমর ফারুকের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল কাকে হাতেনাতে আটক করে। তার কাছ থেকে

পলিথিন ব্যাগে মোড়ানো ৩০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার হয়েছে। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলার পর গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আরো একটি নিউজ,এবার শুঁটকি মাছ উৎপাদন ও প্রক্রিয়াকরণ শিখতে বিদেশে প্রশিক্ষণ নেবেন বাংলাদেশ মৎস‌্য উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি) ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের ৩০ কর্মকর্তা। এ খাতে ব্যয় ধরা হয়েছে ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

‘কক্সবাজার জেলায় শুঁটকি প্রক্রিয়াকরণ শিল্প স্থাপন’ প্রকল্পের আওতায় এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২০০ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। চলতি সময় থেকে ২০২৩ সালের ডিসেম্বরের মধ‌্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

সম্পর্কিত খবর
অবশেষে খিচুড়ি রান্না শিখতে বিদেশ ভ্রমণ বাতিল
বিল্ডিং দেখতে বিদেশ ভ্রমণ, পরামর্শ খরচই ২০ কোটি টাকা
‘খিচুড়ি রান্না নয়, মিড-ডে মিল প্রশিক্ষণে বিদেশ ভ্রমণ’
ইতোমধ‌্যে এ প্রকল্পের প্রস্তাব পরিকল্পনা কমিশনে পাঠিয়েছে বিএফডিসি। কিছুদিনের মধ্যে প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভা হবে। উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনায় (ডিপিপি) বিদেশে ৩০ জন কর্মকর্তার প্রশিক্ষণের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা ব‌্যয়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। করোনা মহামারির কারণে দেশের অর্থনৈতিক বাস্তবতা বিবেচনায় নিয়ে বৈদেশিক প্রশিক্ষণ খাতে ব্যয় কমানো প্রয়োজন বলে মত দিয়েছে পরিকল্পনা কমিশন।

উল্লিখিত প্রকল্পের আওতায় একটি জিপ, একটি ডাবল কেবিন পিকআপ, একটি মাইক্রোবাস ও চারটি মোটরসাইকেল কেনা হবে। কিন্তু যানবাহনের জন্য অর্থ বিভাগের জনবল কমিটি কোনো গাড়িচালকের পদ সুপারিশ করেনি। ডিপিপিতে এসব বিষয় সংশোধন করতে বলেছে পরিকল্পনা কমিশন।

বিদেশে প্রশিক্ষণ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশনের ব্যবস্থাপক (পরিকল্পনা) মো. শামসুজ্জামান বলেন, ‘শুঁটকি উৎপাদন ও প্রক্রিয়াকরণ শিখতে ৩০ জন কর্মকর্তা এক প্রকল্পের আওতায় বিদেশে যাবেন। বিদেশ থেকে মেশিন কেনা হবে। এসব মেশিন পরিচালনা শেখা প্রয়োজন।’

বাংলাদেশ থেকে সিঙ্গাপুর, হংকং, মালয়েশিয়া, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব আমিরাত প্রভৃতি দেশে শুঁটকি মাছ রপ্তানি করা হয়। অনুমান করা হয়, সমুদ্র এলাকায় পচন, পোকা-মাকড়ের আক্রমণে ১০ থেকে ৩৫ শতাংশ শুঁটকি নষ্ট হয়।আরো একটি নিউজ,বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আজকে এমন একটি সময় আমরা এই নির্বাচনের মুখোমুখি হচ্ছি যখন বাংলাদেশের উপর দিয়ে দুটি মহামারী বয়ে চলছে। একটি হলো আওয়ামী দুর্যোগ, আরেকটি হলো করোনা দুর্যোগ। আওয়ামী দূর্যোগ এ জন্য বলছি, আজকে যারা সরকারে আছেন আপনারা জানেন, এ এলাকার মানুষ জানেন, সারা বাংলাদেশের মানুষ জানেন ৩০ ডিসেম্বরে যে নির্বাচন হওয়ার কথা ছিলো ২৯ তারিখ রাতে ভোট ডাকাতির মাধ্যমে সে নির্বাচন নস্যাৎ করেছে।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) বেলা ১১টায় যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ গেটে ঢাকা-৫ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদ এর পক্ষে গণসংযোগের পূর্বে পথ সভায় তিনি একথা বলেন।

এই সরকার বাংলাদেশের জন্য একটি বিপর্যয় উল্লেখ করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, এই যে রাতের অন্ধকারে তারা ভোট ডাকাতি করেছে এটা কেন? আমরা আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে তার মুক্তিকে সামনে রেখে আন্দোলনের অংশ হিসেবে সেই নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। এ দেশের শতকরা ৮০ ভাগ মানুষ তখন ধানের শীষে ভোট দেওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে গিয়েছিল। তখন আওয়ামী লীগ ও গোয়েন্দা সংস্থার লোকেরা আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডকে জানালো ৩০ তারিখ যদি মানুষ সকাল থেকে ভোট দেওয়ার সুযোগ পায় তাহলে বিএনপি ৮০ ভাগ ভোট পাবে আওয়ামী লীগের কোন খবর থাকবে না। তখনই তারা সিদ্ধান্ত নিল আগের রাতে ভোট ডাকাতি করার।

তিনি বলেন, তাদের যদি সামান্যতম আস্থা থাকতো যে জনগণ ভোট দিলে তাদের সামন্য অবস্থান থাকবে তাহলে তারা ভোট ডাকাতি করতো না। ডাকাতি করে তারাই প্রমাণ করেছে ভোট হলে বিএনপি ৮০ ভাগ ভোট পেত। তিনি আরও বলেন, যারা ক্ষমতায় আছেন তারা অনৈতিক সরকার, অবৈধ সারকার, গায়ের জোরের সরকার।

এসময় উপস্তিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাজাহান, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, মহানগর দক্ষিন বিএনপির সাধারন সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ রবিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন নান্টু, যুবদলের সাধারন সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিন, শ্রমিকদলের সাধারন সম্পাদক মাহবুব আলম বাদল, সিনিয়র সহ সভাপতি সুমন ভুঁইয়া, যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান ভাণ্ডারীসহ সহাস্রাধিক নেতাকর্মী।

ফেসবুকে শেয়ার করতে আইকনে চাপুন

এই বিভাগের আরও খবর
সৌদি আরবে আনলিমিডেট ইন্টারনেট ব্যাবহার করুন STC MOBILY সিমে মাত্র 40রিয়ালে এক মাস। কাজের পাশাপাশি ডলারের ব্যবসা করতে যোগাযোগ করুন ইমো +14314007679 ওয়াটসাপ 0572009616